খাওয়ার পর যে কাজ করলেই বিপদ!

ভরপেট খাবার খাওয়ার পর অনেকেই শরীর গলিয়ে দেন বিছানায়! আবার অনেকেই গোসল সারেন কিংবা দৌড়ে যান কাজের উদ্দেশ্যে! আপনিও যদি এমনটি করেন তাহলে নিজের অজান্তেই ঢেকে আনছেন মারাত্মক বিপদ।

জানলে অবাক হবেন, এমন কিছু কাজ আছে যা খাওয়ার পরপরই করলে বিপদ বাড়বে। যা কঠিন রোগের কারণ হতে পারে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক তেমনই কয়েকটি ঝুঁকিপূর্ণ কাজ, যা খাওয়ার পর কখনো করবেন না-

>> খাওয়ার পর নিশ্চয়ই শরীর আরাম পেতে চাইবে! তবে শরীরের আরামের জন্য শুয়ে পড়বেন না ভুল করেও। আয়ুর্বেদ বলছে, ঘুমানোর সময় শরীরের মেটাবলিজম কমে যায়। তাই খাওয়ার পর শুয়ে পড়লে শরীর খাবার হজম করতেই পারবে না। তাই খাওয়ার অন্তত ১-২ ঘণ্টা পর ঘুমান।

>> খাওয়া শেষ করেই পেট ভরে পানি খাবেন না। বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার মাঝে পানি খেতে পারেন। তবে খাওয়ার আগে বা পরে আধা ঘণ্টা পানি না খাওয়াই ভালো। এতে পাচনক্রিয়া ধীর হয়ে যেতে পারে।

>> খাওয়ার পরপরই বাইরে বের হবেন না। আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার পর রোদে বের হলে ত্বকের রক্তসঞ্চালন বেড়ে যায়। অন্যদিকে পেটে বা শরীরের অন্যান্য অংশে রক্তপ্রবাহের হার কমে। এ কারণে হজমে সমস্যা হতে পারে।

>> ভরপেট খাবার খাওয়ার পর কখনো শরীরচর্চা করবেন না। আয়ুর্বেদ মতে, এই সময় শরীরচর্চা করলে খাদ্য পরিপাক হতে সমস্যা হয়। এমনকি খেয়ে হাঁটতেও বের হওয়া যাবে না।

>> খাওয়ার পর খাদ্য হজমের জন্য রক্তপ্রবাহ ও নার্ভ সেন্স পেটের দিকে প্রবাহিত হয়। এমন সময় মস্তিষ্ক ব্যবহার করতে হয় এমন কাজ না করাই ভালো। কারণ এ সময়স পেটের দিকে রক্তসংবহণ কমে যায়, ফলে দেখা দিতে গুরুতর সমস্যা। তাই খাওয়ার পরপরই পড়া কিংবা বসে গুরুত্বপূর্ণ কাজ না করাই ভালো।

>> গোসল তো যখন তখনই করা যায়, এতে আবার বাঁধা কীসের? এমনটি ভাবলে ভুল করবেন। কারণ খাওয়ার পরপরই গোসল করা বিপদের কারণ হতে পারে। গোসল করার আদর্শ সময় হলো খাবার খাওয়ার আগে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার পর গোসল করলে শরীর ঠান্ডা হয়ে যায়। আর খাবার হজমের জন্য শরীরের গরম থাকা প্রয়োজন। তাই খাওয়ার পর গোসল করলে খাবার হজম তো হয়ই না, বরং গ্যাস্ট্রিক, বদহজমসহ নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মেহ-প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের প্রতিকার

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

শেয়ার করুন: