অশোক এর ২৫টি ভেষজ উপকারিতা

ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক বৈশিষ্ট্যে সমৃদ্ধ অশোক গাছ এর ছাল বহু শতাব্দী ধরে ওষুধ হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য, বিশেষত মহিলাদের জন্য একটি বরদান এর চেয়ে কম কিছু নয়। এটি অনিয়মিত রোগ, মেনোপজ, যোনি সংক্রমণ এবং জরায়ুতে সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করতে পারে।

আসুন আজ জেনে নেই অশোক গাছের কমপক্ষে ২৫টি ভেষজ উপকারিতা সম্পর্কে …

অনিয়মিত পিরিয়ড :
আয়ুর্বেদের মতে অশোক গাছ এর ক্ষীর পাক খাওয়া অনিয়মিত সময়ের সমস্যা দূর করে এবং রক্ত প্রবাহকে ঠিক রাখে। ক্ষার পাক তৈরির জন্য অশোক গাছের ছাল শুকনো করে পিষে নিন। এখন 6 গ্রাম গুঁড়ো মধ্যে 500 মিলি। লিটার দুধ এবং জল মিশ্রিত করুন। মিশ্রণটি অর্ধেক হয়ে গেলে গ্যাস বন্ধ করুন। 1 কেশ শীতল করুন এবং 1 চা চামচ মধু মিশিয়ে খালি পেটে পান করুন।

প্রসব বা লিউকোরিয়া– ১০ থেকে ১২ গ্রাম অশোক ছাল নিয়ে আধাচূর্ণ করে এর সঙ্গে পাঁচ থেকে ১০ গ্রাম পরিমান আধাচূর্ণ ডালিম ফলের ছাল মিশিয়ে দুই কাপ পানিতে এক কাপ থাকতে নামিয়ে ছেঁকে নিয়ে খেতে হবে।

পাইলস নিরাময়ে- অশোক ছালের নির্যাস পাইলস, ডিসপেপসিয়া ও ক্ষতস্থান নিরাময়ের জন্য বেশ উপকারী।

ডায়াবেটিস নিরাময়ে- শুষ্ক ফল সিফিলিস, ডায়াবেটিস ও রক্ত আমাশয় নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়।

অশোক গাছ এর ছাল ঋতুস্রাবের বাধা থেকে মুক্তি দেয় :
আপনি যদি পিরিয়ডের সময় অতিরিক্ত বাধা এবং ব্যথা অনুভব করেন তবে এটি পান করে আপনি এটি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এর জন্য, এক গ্লাস জলে 15 গ্রাম অশোকের বাকল গুঁড়ো মিশিয়ে এটি ¼ পরিমান না হওয়া পর্যন্ত সিদ্ধ করুন। ঋতুস্রাব এবং ক্র্যাম্পসের সমস্যাটি অবিচ্ছিন্নভাবে 3 দিন ধরে তা কাটিয়ে উঠবে।

অনিয়মিত পিরিয়ড সম্পর্কে আপনার যা জানা দরকার

যোনি স্রাব :
লিউকোরিয়া সমস্যা কাটিয়ে উঠতে অশোকের ছালের ডোগাও খুব উপকারী। অশোকের ছাল, জল এবং দুধের সম পরিমাণে সিদ্ধ করে একটি কাটা তৈরি করুন। এটি নিয়মিত খেলে লিউকোরিয়ার লক্ষণ হ্রাস পাবে।

পিরিয়ড যদি অবাধে না হয় :
অশোক গাছের ছাল মুছে ফেলুন এবং প্রায় 90 গ্রাম ছাল 30 মিলিলিটার পানিতে 10 মিনিটের জন্য সিদ্ধ করুন। এরপর পানি ছেকে এটি দিনে দু’বার বা তিনবার পান করুন। এটি পিরিয়ডগুলি স্বাভাবিক করে তুলবে।

প্রস্রাবের সংক্রমণ :
যদি ইউরিন সংক্রমণের সমস্যা হয় তবে এর বীজ পিষে নিন এবং প্রতিদিন 2 চামচ জল দিয়ে খান। এটি কয়েক দিনের মধ্যে আপনার সমস্যার সমাধান করবে।

গর্ভধারন ক্ষমতা বৃদ্ধি :
প্রতিদিন অশোকের ছাল দিয়ে তৈরি পানিয় পান করলেও গর্ভধারন ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও, এটি গর্ভাশয় সম্পর্কিত সমস্যাগুলিও সরিয়ে দেয়।

অশোক গাছ এর ছাল গর্ভধারণে সহায়ক :
কিছু মহিলার গর্ভধারণে অনেক অসুবিধা হয়। এক্ষেত্রে ২-৩ গ্রাম অশোক ফুল দই মিশিয়ে খান। এটি গর্ভধারণের সমস্যা দূর করবে

ইউনানী মতে, অশোক ধারক ও রক্তরোধক এবং শুষ্ককারক। কোষ্ঠশোধক এবং দেহের জলীয়াংশের শুষ্ককারক ও অপসারক। এছাড়াও অতিরিক্ত রক্তস্রাব ও রক্তপ্রদরজনিত জরায়ুর রোগে উপকারী। যকৃত ও প্লীহার প্রতিবন্ধকতা অপসারক। মধুর সাথে সেবনে অর্ধাঙ্গ, মৃগী ও মুখবাঁকা রোগে উপকারী। এর প্রলেপ প্লীহার শক্তভাব এবং সন্ধির ব্যথানাশক। অশোক অত্যন্ত মূত্রপ্রবাহক বিধায় অতিরিক্ত সেবনে রক্তমূত্র হতে পারে। শরীরের ও বগলের দুগন্ধ দূর করে। সির্কার সাথে প্রলেপ দিলে কঠিন ওয়ারাম এবং অর্শবলী নাশক। প্রলেপ ব্যবহারে চোখের পাতার কাঠিন্যতা নাশক এবং চোখে ব্যবহারে ফুল্লি ও পর্দা পড়া নাশক। অশোক ৩ গ্রাম পরিমাণে সেকেনজাবীনসহ সেবনে কম্প ও শ্বাসকষ্ট রোগে উপকারী। অশোক চূর্ণ গরম পানিতে গুলে গড়গড়া করলে মস্তিস্ক, কণ্ঠনালী ও স্নায়ুমণ্ডলের যাবতীয় কফজনিত রোগে উপকারী। হপিংকাশিতে বুকে কফ জমা হলে এবং পুরাতন সর্দির ব্যথায় অশোকের প্লাস্টার বিশেষ উপকারী।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।