বার্ধক্য প্রতিরোধ, চুলের পুষ্টি ও যৌবনশক্তি যোগায় যে ভেষজ

ত্বকের জন্য উপকারী: অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের সমৃদ্ধ উৎস হওয়ার দরুণ একটি প্রকৃত বার্ধক্য প্রতিরোধী ভেষজ।

বয়ঃবৃদ্ধির প্রাথমিক উপসর্গ রোধ করে এবং শুষ্ক ত্বক এবং কেরাটোসিস-এর বিরুদ্ধে শরীর রক্ষা করে।

চমৎকার কেশ টনিক: অশ্বগন্ধা চুলে পুষ্টি জোগায়, যা চুল পড়া কমতে সাহায্য করে এবং চুল দীর্ঘ এবং উজ্জ্বল করে।

সেটি কি জানতে চান? হঁ্যা বলছি। খুব সহজলভ্য একটি ভেষজ। যার নাম অশ্বগন্ধা। ঘোড়ার মতো কিছুটা গন্ধ আছে বলেই এর নাম অশ্বগন্ধা।

অশ্বগন্ধার উপকারিতা কী কী? সব বয়সের সবাই কি খেতে পারেন?

অশ্বগন্ধা নামের চিরহরিৎ গুল্মটি মূলত ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল যেমন, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, গুজরাট ও রাজস্থানের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে জন্মায়। এ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যের শুষ্ক অঞ্চল এবং আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকার কোনও কোনও অংশে অশ্বগন্ধা গাছ দেখা যায়।

আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলির মধ্যে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও পাকিস্তানে এই গুল্ম ভাল ভাবেই পরিচিত। বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ভেষজ অ্যাডাপটোজেন অশ্বগন্ধা, অন্যান্য বিখ্যাত ভেষজ টনিক জিনসেং, অ্যাসট্রাগালুস, ডং কুয়াই, রেইশি মাসরুম ও সুমার সঙ্গে তুলনীয়। তাই কেউ কেউ এদের ‘ভারতীয় জিনসেং’ কিংবা ‘শীতের চেরি’ বলেও উল্লেখ করে থাকেন।

প্রকৃতির ঝুলিতে এমন কিছু শক্তিশালী উপাদান সঞ্চিত রয়েছে, যা ক্যান্সারের মতো মারণ রোগের চিকিৎসাতেও কাজে আসেত পারে। কিন্তু সমস্যাটা হল এই প্রাকৃতিক সম্পদের বিষয়ে জানা আছে খুব কম সংখ্যক মানুষের। তাই তারা আজও আয়ুর্বেদ চিকিৎসার উপর ভরসা রাখতে না পেরে ছুটছে আধুনিক চিকিৎসার পিছনে।

এতে একদিকে যেমন পকেট খালি হচ্ছে, তেমনি রোগ সেরে যাওয়ার গ্যারান্টিও মিলছে না।

আজও প্রকৃতির শক্তিকে কাজে লাগিয়ে নিজের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটানোর সুযোগ যারা পাননি, তাদের কথা ভেবেই এই প্রবন্ধটি লেখার সিদ্ধান্ত নেওয়া।

এই লেখায় এমন একটি গুল্মের সন্ধান দেওয়া হবে, যাকে গত ৩০০০ বছর ধরে কাজে লাগানো হচ্ছে নানা রোগের চিকিৎসায়।

অশ্বগন্ধার উপকারিতা অনেক। বিস্তারিত জেনে নিন :

১. অনিদ্রাজনিত রোগে সেবন করুন।

২. উচ্চরক্তচাপে ব্যবহার করুন।

৩. শুক্রাণু স্বল্পতায় ব্যবহার করুন।

৪. বাত ব্যথা, গাটের ব্যাথা, শরীর ফোলার ক্ষেত্রে ব্যবহার করুন।

৫.হৃদপিণ্ডের রোগেে ব্যবহার করুন।

৬. শারীরিক দুর্বলতা, স্বপ্নদোষ, পেশিশক্তি বৃদ্ধির জন্য ব্যবহার করুন।

১০ বছরের উপরে ব্যবহার করুন।

অশ্বগন্ধা ছোট একধরনের গুল্ম, যাতে হলুদ রঙের ফুল হয়। এটা ভারত এবং উত্তর আফ্রিকাতে পাওয়া যায়। এটার জড় অথবা পাতার নির্জাস বা গুড়া বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত হয়।

রক্তের সুগার কমাতে অশ্বগন্ধা

বেশকিছু গবেষণাতে দেখা গেছে অশ্বগন্ধা রক্তে সুগার কমাতে সাহায্য করে।

অশ্বগন্ধা ইনসুলিন লেভেল এবং পেশীর কোষে ইনসুলিন এর কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে।

কিছু গবেষণাতে এ ও দেখা গেছে অশ্বগন্ধা স্বাস্থ্যকর এবং ডায়াবেটিস আক্রান্ত উভয় মানুষের শরীরে, রক্তের সুগার লেভেল কমায়।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)
হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়