ভিটামিন ডি কেন এত প্রয়োজন?

আমরা জানি, সুস্থ হাড় ও দাঁতের জন্য ভিটামিন ডি প্রয়োজন।এছাড়াও বিভিন্ন জীবাণু থেকে রক্ষা পেতেও সাহায্য করে ভিটামিন ডি। খাবারের পাশাপাশি প্রাকৃতিক উপায়ে সূর্যের আলো থেকেই আমরা ভিটামিন ডি পেয়ে থাকি।

কেন প্রয়োজন-

• শিশুর বিকাশ ও বৃদ্ধিতে কাজ করে

• বয়স্কদের হাড় জনিত ক্ষয়রোগ থেকে রক্ষা করে

• ক্যালশিয়ামের শোষণ ও ফসফরাসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে

• ঠান্ডা লাগা, সর্দিকাশি ভালো হয়

• তীব্র রোদে মাত্র কয়েক মিনিটেই দুর্বল হয়ে সংক্রামক জীবাণু।

শরীরে ভিটামিন ডি’র অভাব দেখা দিলে

• রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়

• কোথাও কেটে গেলে ঘা শুকাতে বেশি সময় লাগে

• স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি চুল পড়ে

• দাঁত ও হাড়ের ক্ষয়।

ভিটামিন ডি বাড়ানোর উপায়

• সানস্ক্রিন না মেখেই দিনে ১০-১৫মিনিট রোদে কাটান

• ড্রাইভ করার সময় গাড়ির জানলা খোলা রাখুন যাতে রোদ এসে লাগে

• চা-কফির মগ হাতে নিয়ে বারান্দায় চলে যান যেখানে রোদ আসে

• এছাড়া ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ গরুর দুধ, মাশরুম, ডিম, পালং শাক, টকদই ও কমলা রাখুন প্রতিদিনের খাবারের তালিকায়।

চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ভিটামিন ডি’র ওষুধ খাওয়া যাবে না।

প্রিয় পাঠক,আমরা প্রতিটা রোগ সম্পর্কে আপনাকে তথ্য দেই, সচেতন করি। আমরা এই লেখায় আপনাকে চিকিৎসা প্রদান করি না। কারণ চিকিৎসার বিষয়টি সম্পূর্ণ আপনার রোগের অবস্থা অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন আপনার চিকিৎসক। তাই এই লেখার মাধ্যমে আপনি আপনার রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে, সচেতন হয়ে চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করে চিকিৎসা গ্রহণ করবেন।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : 01762-240650

ই-মেইল : [email protected]

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়