নখের হলুদ দাগ দূর করার উপায়

হাতের ওপর চাপ তো কম পড়ে না। সারাদিনের রান্না, সবজি কাটা, বাসন ধোওয়া, কাপড় কাচা- কত ধরনের কাজই না করতে হয়! আর এসব করতে গিয়ে সুন্দর নখগুলো কখন হলদেটে হয়ে যায়, টেরও পাওয়া যায় না। এরপর যখন আপনি নখের সেই হলুদ দাগ তুলতে যাবেন, তখন আর কাজটি মোটেও সহজ থাকবে না। এই দাগ দূর করার জন্য কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি মেনে চলতে পারেন। তাতে নখের হলুদ দাগ দূর হয়ে ফিরে আসবে স্বাভাবিক সৌন্দর্য। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

টি-ট্রি অয়েল ও অলিভ অয়েল

চার-পাঁচ ফোঁটা করে টি-ট্রি অয়েল ও অলিভ অয়েল নিন। এবার এই দুই ধরনের তেল মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি নখে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন মিনিট পনেরো। এরপর হালকা গরম পানিতে নখ ধুয়ে ফেলুন। একদিন করলেই ফল পাবেন না। সুফল পেতে এভাবে ব্যবহার করতে হবে নিয়মিত। এতে নখের হারানো সৌন্দর্য ফিরে পাবেন দ্রুতই। সেইসঙ্গে আঙুলে ও নখে সংক্রমণের ভয়ও দূর হবে।

আপেল সাইডার ভিনেগার

আপেল সাইডার ভিনেগার অ্যাসিডিক প্রকৃতির। যেকোনো ধরনের দাগ দূর করতে এটি বেশ কার্যকরী। নখের দাগ দূর করার জন্য দেড় চামচ আপেল সাইডার ভিনেগারের সঙ্গে তিন চামচ গরম পানি মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর দুই হাতের নখ পর্যন্ত চুবিয়ে রাখুন সেই মিশ্রণে। এভাবে মিনিট পাঁচেক রেখে তুলে ফেলুন। এরপর পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে নরম তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। সপ্তাহে একবার এভাবে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।

লেবুর রস

দাগ তোলার কাজে লেবুর রসও বেশ কার্যকরী। হাতের কাছে অন্য কিছু না থাকলে লেবুর রসও ব্যবহার করতে পারেন নখের দাগ তোলার কাজে। একটি বাটিতে লেবুর রস চিপে নিন। এবার পরিষ্কার তুলার সাহায্যে নখে লাগিয়ে ভালো করে ঘষে নিন। এভাবে রেখে দিন মিনিট পাঁচেক। এরপর ধুয়ে ফেলুন। এতে নখের হলুদ দাগ উঠে যাবে। লেবুর রস অ্যাসিডিক প্রকৃতির। সেইসঙ্গে এতে থাকে প্রচুর ভিটামিন সি। এতে দাগ দূর হওয়ার পাশাপাশি নখ ভালো থাকে। লেবুর রসের বদলে কমলার রস ব্যবহারেও সমান উপকার মিলবে।

বেকিং সোডা

বেকিং সোডা কেবল খাবার তৈরিতেই ব্যবহার হয় না, এর রয়েছে আরও অনেক কার্যকারিতা। বিশেষ করে নখের দাগ দূর করতে কাজ করে এটি। সেজন্য দুই চা চাম বেকিং সোডার সঙ্গে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এরপর নখে ঘষুন দুই মিনিটের মতো। এরপর অপেক্ষা করুন আরও দুই মিনিট। তারপর সাবান দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নিন। এভাবে সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।

 

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মেহ-প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের প্রতিকার

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা