ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে যেভাবে খাবেন করলা

করলা স্বাদে তেতো হলেও, এতে থাকে অনেক পুষ্টিগুণ। করলায় থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, জিংকসহ বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন ও খনিজ উপাদান। প্রতিদিন পাতে করলা রাখলে একাধিক রোগ থেকেও মেলে রক্ষা।

ঠিক একইভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ম্যাজিকের মতো কাজ করে করলা। এতে এমন উপাদান আছে, যা ইনসুলিনের পরিমাণ বাড়াতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন করলা খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে।

গবেষণা অনুসারে, করলায় অ্যান্টি-ডায়াবেটিক বৈশিষ্ট্যসহ কয়েকটি সক্রিয় পদার্থ আছে। তাদের মধ্যে একটি হলো চারেন্টিন। এটি রক্তে গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

করলায় আরও আছে পলিপেপটাইড-পি বা পি-ইনসুলিন নামক একটি যৌগ। যা প্রাকৃতিকভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

তবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কীভাবে খাবেন করলা? বিভিন্নভাবে খেতে পারেন এই সবজি। করলার তরকারি কিংবা ভাজি অনেকেরই প্রিয়। আর যদি একেবারেই করলা খেতে না পারেন, তাহলে তা শুকিয়ে নিন।

তারপর কেটে মিহি করে গুঁড়া তৈরি করুন। সকালে খালি পেটে পানিতে এই গুঁড়া মিশিয়ে পান করুন। তবে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে করলার রস খাওয়া বেশি উপকারী।

প্রতিদিন সকালে খালি পেটে আধা কাপ করলার রস ডায়াবেটিস নিযন্ত্রণসহ শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করবে। আবার শরীরও থাকবে সুস্থ।

এ বিষয়ে ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর পুষ্টিবিদ ডা. অঞ্জু সুদ জানান, করলার রস ইনসুলিনকে সক্রিয় করে তোলে। ফলে রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়বে না ও চর্বিতেও রূপান্তরিত হবে না। এতে ওজনও বশে থাকবে।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মেহ-প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের প্রতিকার

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা